August 9, 2022, 11:53 am

অগ্নিকাণ্ডের সময় রাসূল সা. যা করতে বলেছেন

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, মার্চ ৩০, ২০১৯,
  • 0 Time View

বিজয় ডেস্ক: রাজধানীর পুরান ঢাকার অগ্নিকাণ্ডের ঘা শুকাতে না শুকাতেই বনানীতে ভয়ঙ্কর অগ্নিখাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। চলতি বছরে ঢাকায় বড় ধরনের এই দুটি অগ্নিকাণ্ড সংঘঠিত হল। এ দুটি ঘটনায় শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে।

এই অগ্নিকাণ্ড থেকে রক্ষা পেতে মানুষ বিভিন্ন ধরনেই কৌশল অবলম্বন করে। তবে এ বিষয়ে ইসলাম কি বলে? চলুন জেনে নেয়া যাক-

কোথাও আগুন লাগলে হতাশ না হয়ে আগুন নিভানোর ক্ষেত্রে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করার পাশাপাশি কিছু দোয়া ও আমলে নির্দেশনাও প্রদান করেছে ইসলাম।

একটি হাদিসে বর্ণিত হয়েছে। হজরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর ইবনুল আস (রা.) থেকে বর্ণিত রাসুল (সা.) বলেন, ‘তোমরা যখন কোথাও আগুন (লাগতে) দেখো, তখন তোমরা তাকবির দাও। কারণ তাকবির আগুন নিভিয়ে দেবে। (তাবরানি, হাদিস নং: ১/৩০৭)

তাকবির হলো- আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার। এর অর্থ: আল্লাহ মহান। আল্লাহ মহান।

ইমাম ইবনে তাইমিয়া (রহ.) বলেন, ‘আগুন যত প্রলয়ঙ্করী হোক; তাকবিরের মাধ্যমে তা নিভে যায়। আর আজানের মাধ্যমে শয়তান পলায়ন করে। (আল-ফাতাওয়া আল-কুবরা: ৫/১৮৮)

পবিত্র কোরআনের একটি আয়াত রয়েছে, যেটি পড়লে আগুন নেভাতে প্রভাব পড়বে এবং আগুনের ক্রিয়া নিস্তেজ হয়ে যাবে। আল্লাহর নবী হজরত ইবরাহিমকে (আ.) আগুন যেন স্পর্শ না করে, সে নির্দেশ দিয়েছিলেন মহান আল্লাহ তায়ালা।

পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ হয়েছে, ইয়া না-রু কু-নি বারদান ওয়া সালামান আলা ইবরাহিম। অর্থ : ‘হে আগুন! তুমি ইবরাহিমের জন্য শীতল ও নিরাপদ হয়ে যাও।’ (সুরা আম্বিয়া, আয়াত: ৬৯)

এ ছাড়া আগুন লাগলে বিভিন্ন বর্ণনায় আজান দেওয়ার কথা উল্লেখ রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 LatestNews
themesbanewsbijo41