আদিতমারীতে প্রকৌশলীর উপর হামলা ও চাঁদাবাজি মামলায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা গ্রেফতার-দল থেকে বহিস্কার

আদিতমারী (লালমনিরহাট) প্রতিনিধিঃ নিম্নমানের কাজের অভিযোগ তুলে লালমনিরহাটের আদিতমারীতে উপ-সহকারী প্রকৌশলীকে মারধর ও চাঁদাবাজির মামলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি একেএম হুমায়ন কবিরকে (৪০) কে শনিবার ( ২০ এপ্রিল) রাতে লালমনিরহাট জেলা শহরের সরকারী মজিদা খাতুন মহিলা কলেজ সংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার সকালে কবিরকে আদালতে সোপর্দ করেছে আদিতমারী থানা পুলিশ।

গ্রেফতার হুমায়ন কবির আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের সরলখাঁ গ্রামের বাসিন্দা ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি।

এদিকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কার্য্যলয়ে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপের দায়ে লালমনিরহাট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি পদ থেকে তাকে সাময়িক ভাবে বহিস্কার করা হয়েছে। দিনগত রাতে জরুরী সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহন করে চিঠি পাঠায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কার্যনির্বাহী কমিটি।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক অ্যাডভোকেট সরিফুল ইসলাম রাজু স্বাক্ষরিত বহিস্কারাদেশের চিঠিতে বলা হয়, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি একেএম হুমায়ুন কবির দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়েন। তাই পরবর্তি নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত সংগঠনের গঠনতন্তের ৩৪(ঞ) ধারা মতে সকল পদ পদবি থেকে তাকে অব্যহতি প্রদান করা হয়।

মামলা সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের সরলখাঁ উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় একটি রাস্তার কার্পেটিং এর কাজ বাস্তবায়ন করছে উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তর। সড়কটির কার্পেটিং কাজের শুরুতেই বৃহস্পতিবার জেলা স্বেচ্ছেসেবক লীগের সহ-সভাপতি একেএম হুমায়ন কবির ও তার লোকজন কাজের মান নিম্নমানের নিয়ে প্রশ্ন তুলেন ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এসময় কাজের তদারকির দায়িত্বে থাকা উপ-সহকারী প্রকৌশলী জাকিরুল ইসলাম (৪৮) ও কার্য সহকারী আশরাফুল আলমের উপর হামলা চালায়।

আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে কার্য সহকারী আশরাফুলকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় আর উপ-সহকারী প্রকৌশলী জাকিরুলকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই জাকিরুল বাদী হয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হুমায়ন কবির ও তার ছোট ভাই রাশেদুজ্জান রাশেদসহ অজ্ঞাত ১০/১২ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় কবিরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জেলা পরিষদ সদস্য সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিককে জানান, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে জরুরী বৈঠকের মাধ্যমে সহ সভাপতি পদ হতে একেএম হুমায়ুন কবিরকে অব্যহতি প্রদান করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি চিঠি তার ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে।

আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাসুদ রানা সত্যতা স্বীকার করে বলেন,রবিবার সকালে কবিরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

নিউজবিজয়২৪.কম/ রেজাউল করিম রাজ্জাক,

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon