এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন জিএম কাদের

ঢাকা:  জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকার কারণে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। বুধবার (২৬ জুন) সকাল ৮টার দিকে সবমিলিয়ে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সুস্থতা এবং রোগমুক্তির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তার সহোদর ও জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের। এরশাদের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী বুধবার (২৬ জুন) সন্ধ্যায় এক ই-মেইল বার্তায় এ তথ্য জানান।

তিনি আরও জানান, সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ভালো আছেন। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তার চিকিৎসা চলছে। তিনি ডাক্তারদের তত্ত্বাবধানে আইসিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জাতীয় পার্টির একাধিক নেতা এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, এরশাদ এমনিতেই শারীরিকভাবে অসুস্থ। এর মধ্যে তার জ্বর এসেছে।

সূত্র জানায়, শরীরে জ্বর থাকায় ভীষণ দুর্বল বোধ করছিলেন এরশাদ। তার শরীর কাঁপছিল। সে কারণেই তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাকে হাসপাতালের সিসিইউতে রাখা হয়েছে।

তবে এরশাদের ব্যক্তিগত এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে জানান, স্যার রুটিন চেকআপের জন্য নিয়মিত সিএমএইচে যান। সেখানে তার চিকিৎসা হয়। যখন খারাপ লাগে তখনই উনি সিএমএইচে যান।

সর্বশেষ গত ২০ জানুয়ারি সিঙ্গাপুরে চিকিৎসার জন্য যান এরশাদ। সেখান থেকে ফেরেন ৪ ফেব্রুয়ারি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে অর্থাৎ ২০১৮ সালের ১০ ডিসেম্বর চিকিৎসার জন্য সে দেশে যান এরশাদ। ভোটের মাত্র তিনদিন আগে ২৬ ডিসেম্বর ফেরেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon