ঢাকা ০৫:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কাউনিয়ায় ছাত্রী যৌন হয়রানির চেষ্টার মামলায় শিক্ষক তুহিন কারাগারে

Up to BDT 150 Cashback on New Connection

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় বালিকা মাদ্রাসা ক্লাস রুমে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির চেষ্টার মামলায় শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এ আদেশ প্রদান করেন। তাজুল ইসলাম তুহিন কাউনিয়া উপজেলার কূর্শা ইউনিয়নের বাহাগিলী গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে এবং ওই এলাকার সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক।
আদালত ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ আগস্ট দুপুরে সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসায় ক্লাস রুমে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে একা পেয়ে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন শিক্ষক তুহিন। এসময় মেয়েটি চিৎকার দিলে তার সহপাঠীরা এগিয়ে যায়। তখন তুহিন বিষয়টি অন্যদের না বলার জন্য ওই শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দেখান। পরে ক্লাস শেষে মেয়েটি বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়। এ ঘটনায় গত ২৫ আগস্ট ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে কাউনিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ধারায় তাজুল ইসলাম তুহিনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর গা ঢাকা দেয় ওই শিক্ষক। পরে তিনি মাহামান্য হাইকোর্ট থেকে জামিন এসে মামলার বাদীকে ভয়ভীতি দেখায়। রংপুর নারী ও শিশু আদালতের সরকারি কৌঁসুলি পিপি তাজিবুর রহমান লাইজু বলেন, কাউনিয়া উপজেলার সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ধারার একটি মামলায় মাহামান্য হাইকোর্ট থেকে জামিন ছিল। ইতিমধ্যে তার জামিনের মেয়াদ শেষ হয়। গত মঙ্গলবার আসামি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত- ৩ এর বিচারক। সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার সুপার নজরুল ইসলাম বলেন, শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিন এর আগে প্রতিষ্ঠানের একাধিক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেছিল। গত ২৪ আগষ্ট ঘটনার পর ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে একাধিক শিক্ষার্থী লিখিত অভিযোগ করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিন সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে করাত কলে দেহ থেকে শ্রমিকের হাত ও জিব্বাহ বিছিন্ন

কাউনিয়ায় ছাত্রী যৌন হয়রানির চেষ্টার মামলায় শিক্ষক তুহিন কারাগারে

প্রকাশিত সময়: ০৯:২৩:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় বালিকা মাদ্রাসা ক্লাস রুমে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির চেষ্টার মামলায় শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এ আদেশ প্রদান করেন। তাজুল ইসলাম তুহিন কাউনিয়া উপজেলার কূর্শা ইউনিয়নের বাহাগিলী গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে এবং ওই এলাকার সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক।
আদালত ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ আগস্ট দুপুরে সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসায় ক্লাস রুমে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে একা পেয়ে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন শিক্ষক তুহিন। এসময় মেয়েটি চিৎকার দিলে তার সহপাঠীরা এগিয়ে যায়। তখন তুহিন বিষয়টি অন্যদের না বলার জন্য ওই শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দেখান। পরে ক্লাস শেষে মেয়েটি বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়। এ ঘটনায় গত ২৫ আগস্ট ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে কাউনিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ধারায় তাজুল ইসলাম তুহিনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর গা ঢাকা দেয় ওই শিক্ষক। পরে তিনি মাহামান্য হাইকোর্ট থেকে জামিন এসে মামলার বাদীকে ভয়ভীতি দেখায়। রংপুর নারী ও শিশু আদালতের সরকারি কৌঁসুলি পিপি তাজিবুর রহমান লাইজু বলেন, কাউনিয়া উপজেলার সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ধারার একটি মামলায় মাহামান্য হাইকোর্ট থেকে জামিন ছিল। ইতিমধ্যে তার জামিনের মেয়াদ শেষ হয়। গত মঙ্গলবার আসামি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত- ৩ এর বিচারক। সিঙ্গারকুড়া আহমাদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার সুপার নজরুল ইসলাম বলেন, শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিন এর আগে প্রতিষ্ঠানের একাধিক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেছিল। গত ২৪ আগষ্ট ঘটনার পর ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে একাধিক শিক্ষার্থী লিখিত অভিযোগ করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষক তাজুল ইসলাম তুহিন সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন