ঢাকা ০১:৪১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গাড়িসহ ৭৩ লট পণ্য ফের নিলামে তুলছে চট্টগ্রাম কাস্টমস

জাপানি গাড়িসহ বিভিন্ন ধরনের ৭৩ লট পণ্য নিলামে তুলছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। আগামী ১৬ অক্টোবর এ নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। নিলাম প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে এরই মধ্যে ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রি শুরু হয়েছে। নির্ধারিত মূল্যে নিলামে অংশগ্রহণকারীদের (বিডার) কাছে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রি করবে কাস্টমসের নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিনিধি মেসার্স কেএম করপোরেশন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, বিডাররা অফিস চলাকালীন এবং নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স কেএম করপোরেশনের মাঝিরঘাটের অফিস, কাস্টমসের নিলাম শাখা অফিস এবং ঢাকার মতিঝিল অফিস থেকে ক্যাটালগ ও দরপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়া আগামী ১২ ও ১৩ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টার মধ্যে দরপত্র চট্টগ্রাম কাস্টমসের রাজস্ব কর্মকর্তার (প্রশাসন) কার্যালয়, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, শুল্ক আবগারি ও ভ্যাট কমিশনারেটের (ঢাকা দক্ষিণ) কার্যালয় এবং ঢাকার কাকরাইলে আইডিইবি ভবনে স্থাপিত দরপত্রের বাক্সে জমা দেওয়া যাবে। ১৬ অক্টোবর দুপুর আড়াইটায় বিডারদের উপস্থিতিতে দরপত্রের বাক্স খোলা হবে। জানা গেছে, নিলামের জন্য জাপানের তৈরি টয়োটা ব্র্যান্ডের সাদা রঙের গাড়িসহ আনপ্রিন্টেড পিভিসি শিট, ফিনিশিং এজেন্ট, হাইড্রোক্লোরিক এসিড, ডাই এসিড এইচপি, ব্যবহৃত ডেস্ক, বুক কেস, চেয়ার ও এয়ারকন্ডিশনার, সেফটি রেজার্স, প্লাস্টিক হ্যাঙ্গার, প্লাস্টিক বাকল, গ্র্যাফট, এলইডি টিভি, লুব অয়েল, আলকাতরা, কেরোসিন অয়েল, পাম অয়েল, থিনার, হাইক্লোরিক অয়েল ও স্লাজ অয়েল, ফসফরিক এসিড, নাইট্রিক এসিড, হাইড্রো এসিড, পটাশিয়াম হাইড্রোক্সাইড, পিনোল, গ্রিজ, ফরমালডিহাইড সলিউশন, সারফেস একটিভ প্রিপারেশন, লুব্রিকেটিং প্রিপারেশন, গার্মেন্টস ফেব্রিক্স, রাইচ মিলস মেশিনারি, সালফিউরিক এসিড, ডিজেল, নন মেটালিক হার্ডনার, ডেনিম ফেব্রিক্স, সিরামিকের ফুলদানি, ডুপ্লেক্স বোর্ড, প্লাস্টিকের জিপার, ইলাস্টিক বেল্ট, মেটাল ফ্রেম, ব্যাটারি লিড, ওয়াশিং কেমিক্যাল, মোবাইল কেসিং, ফেস ওয়াশ, ব্যবহৃত উইনডার মেশিন, তেঁতুল বিচি, সিরামিক ওয়াল, গিয়ারবক্স, ফিড মেশিনারি, মিরর, লেডিস বেল্ট, ইন্ডাস্ট্রিয়াল সল্ট, ভল্টেজ স্ট্যাবিলাইজার, চশমা, সানগ্লাস, মোটর, স্টেইনলেস স্টিল মেটাল স্ক্র্যাপ, খাকি রঙের বড় কাগজের রোল, সিরামিক মগ ও পিভিসি ফর কোডিং টাওয়ার প্রস্তুত করা হয়েছে।এর মধ্যে টয়োটা ব্র্যান্ডের সাদা রঙের গাড়িটির দাম ধরা হয়েছে ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৭৭৬ টাকা ৯৪ পয়সা। গাড়িটি ২০০৩ সালের তৈরি। এর আগে গাড়িটি তিনবার নিলামে তুলেও বিক্রি করতে পারেনি কাস্টমস। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের নিলাম শাখার উপ-কমিশনার সন্তোষ সরেন বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে দীর্ঘ সময় পড়ে থাকা অখালাসকৃত পণ্যের নিয়মিত নিলাম অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১৬ অক্টোবর ৭৩ লট বিভিন্ন ধরনের পণ্য নিলামে তোলা হচ্ছে।

নিউজ বিজয়/মোঃ নজরুল ইসলাম

Up to BDT 650 benefits on New Connection

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy24

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

Nagad-Fifa-WorldCup

বিএনপির নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

গাড়িসহ ৭৩ লট পণ্য ফের নিলামে তুলছে চট্টগ্রাম কাস্টমস

প্রকাশিত সময়: ০১:২৯:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২

জাপানি গাড়িসহ বিভিন্ন ধরনের ৭৩ লট পণ্য নিলামে তুলছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। আগামী ১৬ অক্টোবর এ নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। নিলাম প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে এরই মধ্যে ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রি শুরু হয়েছে। নির্ধারিত মূল্যে নিলামে অংশগ্রহণকারীদের (বিডার) কাছে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রি করবে কাস্টমসের নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিনিধি মেসার্স কেএম করপোরেশন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, বিডাররা অফিস চলাকালীন এবং নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স কেএম করপোরেশনের মাঝিরঘাটের অফিস, কাস্টমসের নিলাম শাখা অফিস এবং ঢাকার মতিঝিল অফিস থেকে ক্যাটালগ ও দরপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়া আগামী ১২ ও ১৩ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টার মধ্যে দরপত্র চট্টগ্রাম কাস্টমসের রাজস্ব কর্মকর্তার (প্রশাসন) কার্যালয়, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, শুল্ক আবগারি ও ভ্যাট কমিশনারেটের (ঢাকা দক্ষিণ) কার্যালয় এবং ঢাকার কাকরাইলে আইডিইবি ভবনে স্থাপিত দরপত্রের বাক্সে জমা দেওয়া যাবে। ১৬ অক্টোবর দুপুর আড়াইটায় বিডারদের উপস্থিতিতে দরপত্রের বাক্স খোলা হবে। জানা গেছে, নিলামের জন্য জাপানের তৈরি টয়োটা ব্র্যান্ডের সাদা রঙের গাড়িসহ আনপ্রিন্টেড পিভিসি শিট, ফিনিশিং এজেন্ট, হাইড্রোক্লোরিক এসিড, ডাই এসিড এইচপি, ব্যবহৃত ডেস্ক, বুক কেস, চেয়ার ও এয়ারকন্ডিশনার, সেফটি রেজার্স, প্লাস্টিক হ্যাঙ্গার, প্লাস্টিক বাকল, গ্র্যাফট, এলইডি টিভি, লুব অয়েল, আলকাতরা, কেরোসিন অয়েল, পাম অয়েল, থিনার, হাইক্লোরিক অয়েল ও স্লাজ অয়েল, ফসফরিক এসিড, নাইট্রিক এসিড, হাইড্রো এসিড, পটাশিয়াম হাইড্রোক্সাইড, পিনোল, গ্রিজ, ফরমালডিহাইড সলিউশন, সারফেস একটিভ প্রিপারেশন, লুব্রিকেটিং প্রিপারেশন, গার্মেন্টস ফেব্রিক্স, রাইচ মিলস মেশিনারি, সালফিউরিক এসিড, ডিজেল, নন মেটালিক হার্ডনার, ডেনিম ফেব্রিক্স, সিরামিকের ফুলদানি, ডুপ্লেক্স বোর্ড, প্লাস্টিকের জিপার, ইলাস্টিক বেল্ট, মেটাল ফ্রেম, ব্যাটারি লিড, ওয়াশিং কেমিক্যাল, মোবাইল কেসিং, ফেস ওয়াশ, ব্যবহৃত উইনডার মেশিন, তেঁতুল বিচি, সিরামিক ওয়াল, গিয়ারবক্স, ফিড মেশিনারি, মিরর, লেডিস বেল্ট, ইন্ডাস্ট্রিয়াল সল্ট, ভল্টেজ স্ট্যাবিলাইজার, চশমা, সানগ্লাস, মোটর, স্টেইনলেস স্টিল মেটাল স্ক্র্যাপ, খাকি রঙের বড় কাগজের রোল, সিরামিক মগ ও পিভিসি ফর কোডিং টাওয়ার প্রস্তুত করা হয়েছে।এর মধ্যে টয়োটা ব্র্যান্ডের সাদা রঙের গাড়িটির দাম ধরা হয়েছে ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৭৭৬ টাকা ৯৪ পয়সা। গাড়িটি ২০০৩ সালের তৈরি। এর আগে গাড়িটি তিনবার নিলামে তুলেও বিক্রি করতে পারেনি কাস্টমস। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের নিলাম শাখার উপ-কমিশনার সন্তোষ সরেন বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে দীর্ঘ সময় পড়ে থাকা অখালাসকৃত পণ্যের নিয়মিত নিলাম অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১৬ অক্টোবর ৭৩ লট বিভিন্ন ধরনের পণ্য নিলামে তোলা হচ্ছে।

নিউজ বিজয়/মোঃ নজরুল ইসলাম