ঢাকা ১১:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডিমলায় প্রতিটি পূজা মন্ডবে থাকছে সিসি ক্যামেরা

আসন্ন দুর্গাপূজায় প্রতিটি মন্ডপে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন বলেছেন, সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে ডিমলা উপজেলার সবকটি পূজামন্ডপ। তিনি আরও বলেন, অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে পূজা শেষ না হওয়া পর্যন্ত স্থায়ীভাবে আনসার সদস্য রাখা হবে। এ ছাড়া থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (২৭-সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে উপজেলার সর্বমোট ৭৮টি পূজা মন্ডবের পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি-সম্পাদকের অনুকূলে ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের আওতায় প্রতিটি মন্ডবের জন্য ৫ শত কেজি করে “জিআর চাউল বরাদ্দ” প্রদান সভায় এসব কথা বলেন ইউএনও।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নীরেন্দ্রনাথ রায়, উপজেলা ত্রাণ শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম, উপজেলা পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি বাবু মোহিত কুমার সিংহ রায় সহ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি সম্পাদক বৃন্দ।

পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) লাইছুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
তিনিও বলেন, এবছর উপজেলার প্রতিটি পূজা মন্ডবে থাকছে সিসি ক্যামেরা, কোথাও কোন অপ্রত্যাশিত, অপ্রীতিকর ঘটনার সংঘটিত হলে ওই মন্ডবের সিসি ক্যামেরা থেকে ফুটেজ সংগ্রহ করে তাৎক্ষণিক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সেই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনো ধরনের অপপ্রচার করলেই কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যে কোনো জরুরি প্রয়োজন সংক্রান্তে ডিমলা থানার ওসি ০১৩২০-১৩৫৫০৬, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ০১৭৩৩-৩৯০৬৬৩ ও জাতীয় সেবার হেল্প ডেস্ক নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করতে বলেছেন ওসি লাইছুর রহমান।

আজান-নামাজের সময় মসজিদের পার্শ্ববর্তী পূজামণ্ডপগুলোতে শব্দযন্ত্রের ব্যবহার সীমিত রাখতে অনুরোধ জানিয়ে পূজামণ্ডপে জুয়া ও মাদক নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। দুষ্কৃতকারীদের অশুভ তৎপরতা রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত সক্রিয় থাকবে।

সাথে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রতি মণ্ডপে পুরুষ ও নারীদের জন্য আলাদা পথ রাখতে হবে। এটাও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

নিউজবিজয়/এফএইচএন

 

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy24

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

Nagad-Fifa-WorldCup

কুড়িগ্রামে চালু হলো এক টাকার রেস্টুরেন্ট

google.com, pub-9120502827902997, DIRECT, f08c47fec0942fa0

ডিমলায় প্রতিটি পূজা মন্ডবে থাকছে সিসি ক্যামেরা

প্রকাশিত সময়: ১০:০১:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

আসন্ন দুর্গাপূজায় প্রতিটি মন্ডপে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন বলেছেন, সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে ডিমলা উপজেলার সবকটি পূজামন্ডপ। তিনি আরও বলেন, অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে পূজা শেষ না হওয়া পর্যন্ত স্থায়ীভাবে আনসার সদস্য রাখা হবে। এ ছাড়া থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (২৭-সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে উপজেলার সর্বমোট ৭৮টি পূজা মন্ডবের পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি-সম্পাদকের অনুকূলে ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের আওতায় প্রতিটি মন্ডবের জন্য ৫ শত কেজি করে “জিআর চাউল বরাদ্দ” প্রদান সভায় এসব কথা বলেন ইউএনও।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নীরেন্দ্রনাথ রায়, উপজেলা ত্রাণ শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম, উপজেলা পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি বাবু মোহিত কুমার সিংহ রায় সহ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি সম্পাদক বৃন্দ।

পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) লাইছুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
তিনিও বলেন, এবছর উপজেলার প্রতিটি পূজা মন্ডবে থাকছে সিসি ক্যামেরা, কোথাও কোন অপ্রত্যাশিত, অপ্রীতিকর ঘটনার সংঘটিত হলে ওই মন্ডবের সিসি ক্যামেরা থেকে ফুটেজ সংগ্রহ করে তাৎক্ষণিক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সেই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনো ধরনের অপপ্রচার করলেই কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যে কোনো জরুরি প্রয়োজন সংক্রান্তে ডিমলা থানার ওসি ০১৩২০-১৩৫৫০৬, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ০১৭৩৩-৩৯০৬৬৩ ও জাতীয় সেবার হেল্প ডেস্ক নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করতে বলেছেন ওসি লাইছুর রহমান।

আজান-নামাজের সময় মসজিদের পার্শ্ববর্তী পূজামণ্ডপগুলোতে শব্দযন্ত্রের ব্যবহার সীমিত রাখতে অনুরোধ জানিয়ে পূজামণ্ডপে জুয়া ও মাদক নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। দুষ্কৃতকারীদের অশুভ তৎপরতা রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত সক্রিয় থাকবে।

সাথে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রতি মণ্ডপে পুরুষ ও নারীদের জন্য আলাদা পথ রাখতে হবে। এটাও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

নিউজবিজয়/এফএইচএন