ডোমারে প্রথম স্ত্রীর কথা গোপন রেখে বিয়ে করতে এসে বর আটক, গণধোলাইয়ের শিকার

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারী ডোমারে প্রথম স্ত্রীর কথা গোপন রেখে বিয়ে করতে এসে বর আটক, গণধোলাইয়ের শিকার। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের প্রামানিক পাড়া গ্রামে। যানাযায়, উক্ত গ্রামের এক দিনমুজুরের কন্যা মিরজাগঞ্জ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ১৫ এপ্রিল রাত ১টায় বর বেশে ৫০ জন বরযাত্রী সাথে নিয়ে বিয়ে করতে আসে মিরজাগঞ্জ ঝাড়পাড়া গ্রামের হামিদুর রহমানের ছেলে গার্মেন্টস কর্মী আশরাফুল ইসলাম (১৯)। কিন্তু বাঁধ সাধে নিয়তি, কনে পক্ষ গোপন সংবাদে জানতে পারে আশরাফুলের আগের স্ত্রী রয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে অস্বীকার করে, পরে স্বীকার করে বলে, যে ২ বছর আগে ডিভোর্স হয়েছে। কাগজ দেখতে চাইলে তারা দেখাতে না পারায় বিয়ে বাড়ীতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয় এ সময় বর যাত্রীরা পালিয়ে যায়। সেখান থেকে বর আশরাফুল ও তার দুলাভাই রহমত আলী ও ইসলামকে আটক করে খুঁটিতে বেঁধে গণধোলাই দেয় কনে পক্ষের লোক। কনের পিতা জানান, ৩০ হাজার টাকা নগত দিয়েছি, টাকা ফেরত দিলে তাদের ছেড়ে দেয়া হবে। নইলে প্রতারনার দায়ে পুলিশের হাতে তুলে দিবে তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon