পরিবারের কাছে শেষ ফোন ছিল পাটগ্রামের আবীরের

লালমনিরহাট : রাজধানীর বনানীতে এফ আর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় লালমনিরহাটের পাটগ্রামের আনজির সিদ্দিক আবীর (২৮) তার মরদেহ উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ছোট চাচা মোস্তাফিজার রহমান। তিনি বলেন, বর্তমানে তার মরদেহ কুর্মিটোলা হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

আনজির সিদ্দিক আবীর লালমনিরহাটের পাটগ্রাম পৌর শহরের আবু বকর সিদ্দিক বাচ্ছু ছেলে। তিনি ওই ভবনের ১৮ তলার মিকা সিকিউরিটিস লি. কোম্পানিতে কর্মরত ছিল।

এর আগে তার স্বজনরা ঢামেক ও কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালসহ বেশ কয়েক জায়গায় আবীরের খোঁজ করেও কোথাও তাকে খুঁজে পাননি।
পরিবার সুত্রে জানা গেছে, আনজির সিদ্দিক আবীর সকালে তার বাড়িতে ফোনে কথা বলার পর পরেই অফিসের বাধরুমে ডুকে পড়ে। কিছুক্ষণ পরে বাথরুম থেকে বের হয়ে দেখে এফ আর টাওয়ারের অগ্নিকান্ড। পরে আবারও বাধরুমের ভিতরে ডুকে তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। কিছুক্ষন পরে আবীরের ফোনটি বন্ধ হয়ে গেলে পরিবার আর যোগাযোগ করতে না পেরে ঢাকায় চলে আসে। শহরে বিভিন্ন হাসপাতালে তাকে খুঁজে না পেয়ে রাত ৮টার দিকে জানতে পারে আবীরের খবর। আবীরকে দেখতে পরিবার ছুটে যায়। কিন্তু তাকে পায় মুত অবস্থায়।
নিখোঁজ আনজির সিদ্দিক আবীরের চাচা মোস্তাক জানান,আগুন লাগার পর অফিস থেকে আবীরের সহকর্মীরা বের হয়ে আসেন কিন্তু আবীরকে পাওয়া যাচ্ছে না। শহরে বিভিন্ন হাসপাতালে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। রাত ১০ টায় তার মরদেহ পাওয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon