বাংলাদেশকে হারিয়ে সিরিজ জিতল শ্রীলঙ্কা

এর আগে টস জিতে আগে ব্যাটিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ভালো শুরুর আশ্বাস দিয়েও ব্যর্থ ওপেনাররা। বরাবরের মত এ ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ সৌম্য সরকার। ব্যক্তিগত ১১ করে নুয়ান প্রদীপের বলে এল্বিডব্লিউর শিকার হন সৌম্য। বরাবরের মত রান পাননি তামিম ইকবালও। দলীয় ৩১ রানে উদানার বলে ব্যক্তিগত ১৯ রান করে বোল্ড হন তামিম।
এরপর একের পর এক উইকেট হারানোর প্রতিযোগিতায় নামে বাংলাদেশ। ৮৮ রানের মধ্যে একে একে সাজঘরে ফিরে যান ৫জন প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান। সপ্তম উইকেট জুটিতে মিরাজের সঙ্গে ৮৪ রানের জুটি গড়েই মুশফিক বাংলাদেশকে পার করে দেন ২০০ রানের গন্ডি। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেট হারিয়ে ২৩৮ রান করতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। ১১০ বলে ৯৮ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিক। ৬টি বাউন্ডারির সঙ্গে ১টি ছক্কার মার মারেন তিনি।
মুশফিক হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন ৭১ বলে। মাত্র ২টি বাউন্ডারি মেরে। পরের ৪৮ রান করেন তিনি ৩৯ বলে। বাউন্ডারি মেরেছেন আরও ৪টি। সঙ্গে একটি ছক্কাও। তার এই ব্যটিং দৃঢ়তাই লজ্জা থেকে বাঁচিয়ে দেয় বাংলাদেশকে। শ্রীলঙ্কার ইসুরু উদানা, নুয়ান প্রদীপ এবং আকিলা ধনঞ্জয়া নেন ২টি করে উইকেট।
বাংলাদেশের দেওয়া ২৩৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা দারুণ করেন দুই ওপেনার ফার্নাদো ও দিমুথ করুনারত্নে। টার্গেট বড় না হলেও ঝড় গতিতেই ব্যাট করেছেন ফার্নাদো। শ্রীলঙ্কার প্রথম উইকেট ভাঙে দলীয় ৭১ রানে। মিরাজের বলে বোল্ড হন করুনারত্নে। অবশ্য তবুও ঝড়ো ব্যাটিং  বন্ধ করেননি ফার্নাদো।
শল পেরেরাকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাট হাতে দলের রান বাড়াতে থাকেন ফার্নাদো। দ্বিতীয় উইকেট জুটি থেকে আসে ৫৮ রান। ব্যক্তিগত ৭৫ বলে ৮২ রান করে মুস্তাফিজের বলে আউট হন ফার্নাদো। তার বিদায়ের একটু পরেই কুশল পেরেরা আউট হলে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেয় বাংলাদেশ। তবে ম্যাচটি নিজেদের দিকে নিয়ে যান কুশল মেন্ডিস ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুইজ।
দুইজনের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে জয়ের দিকে এগোতে থাকে শ্রীলঙ্কা। শেষ পর্যন্ত মেন্ডিসের অপরাজিত ৪১ ও ম্যাথুইজের অপরাজিত ৫২ রানে জয় পায় লঙ্কানরা। এই জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে শ্রীলঙ্কা।
বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, মোহাম্ম’দ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম  (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, শফিউল ইস’লাম,তাইজুল ইস’লাম ও মু’স্তাফিজুর রহমান।
শ্রীলঙ্কা একাদশ: দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), আভিস্কা ফার্নান্দো, কুশল পেরেরা (উইকেটরক্ষক), কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জে’লো ম্যাথুস, লাহিরু থিরিমান্নে, আকিলা ধানাঞ্জায়, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, নুয়ান প্রদীপ, ইসুরু উদানা ও লাহিরু কুমারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon