ঢাকা ০১:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রংপুরে স্কুল ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত

রংপুরের পীরগঞ্জে খেতাবের পাড়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন ঘিরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সুমন ইসলাম আকাশ (১৪) অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পুলিশের ওসিসহ অন্তত ২৫ জন। ঘটনাস্থলে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। সোমবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে পীরগঞ্জ উপজেলার ৫ নম্বর মদনখালী ইউনিয়নের খেতাবেরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যাজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবীর তালুকদার ও সহকারী শিক্ষক আনারুল হকের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, সংঘর্ষের পর থেকে এলাকাজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতদের উদ্ধার করে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অন্তত ১০ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। খেতাবেরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে নির্বাচন ঘিরে সোমবার সকাল থেকে প্রধান শিক্ষক নুরন্নবী তালুকদার ও সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল হকের গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে সুমন ইসলাম আকাশ নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র গুরুতর আহত অবস্থায় মারা যায়। এ সময় সংঘর্ষে পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়ালসহ প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরে সেখান থেকে ওসি আবদুল আউয়ালসহ আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মধ্যে। এ কারণে আবারো সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল-ডি) মো. কামরুজ্জামান। তিনি বলেন, দুই গ্রুপের সংঘর্ষে থানার ওসি, দুই এসআই এবং এক কনস্টেবলসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত আছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজ বিজয়/মোঃ নজরুল ইসলাম

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy24

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ
google.com, pub-9120502827902997, DIRECT, f08c47fec0942fa0

রংপুরে স্কুল ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত

প্রকাশিত সময়: ০৪:০০:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ অক্টোবর ২০২২

রংপুরের পীরগঞ্জে খেতাবের পাড়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন ঘিরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সুমন ইসলাম আকাশ (১৪) অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পুলিশের ওসিসহ অন্তত ২৫ জন। ঘটনাস্থলে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। সোমবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে পীরগঞ্জ উপজেলার ৫ নম্বর মদনখালী ইউনিয়নের খেতাবেরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যাজিং কমিটি নির্বাচন নিয়ে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবীর তালুকদার ও সহকারী শিক্ষক আনারুল হকের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, সংঘর্ষের পর থেকে এলাকাজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতদের উদ্ধার করে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অন্তত ১০ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। খেতাবেরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে নির্বাচন ঘিরে সোমবার সকাল থেকে প্রধান শিক্ষক নুরন্নবী তালুকদার ও সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল হকের গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে সুমন ইসলাম আকাশ নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র গুরুতর আহত অবস্থায় মারা যায়। এ সময় সংঘর্ষে পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়ালসহ প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরে সেখান থেকে ওসি আবদুল আউয়ালসহ আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মধ্যে। এ কারণে আবারো সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল-ডি) মো. কামরুজ্জামান। তিনি বলেন, দুই গ্রুপের সংঘর্ষে থানার ওসি, দুই এসআই এবং এক কনস্টেবলসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত আছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজ বিজয়/মোঃ নজরুল ইসলাম