ঢাকা ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রৌমারীতে মা-ছেলে খুন

হাফসা আকতার (২৬) ও হাবিব (৫ মাস) নামের মা ছেলের রহস্যজনক ভাবে খুন হয়েছে। শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে রৌমারী থানার পুলিশ এবং শিশুর মাকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হলেও পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চা ল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার ভোররাতে কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার রৌমারী সদর ইউনিয়নের নতুন বন্দর হাজিপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভোররাতে প্রচন্ড বৃষ্টি হচ্ছিল। হঠাৎ আব্দুর সবুর নামের এক ব্যক্তির পুকুরপাড়ের পূর্বপাশে ধানক্ষেত থেকে আত্মচিৎকারের শব্দ শুনতে পায় স্থানীয়রা। ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটির মরদেহ ও পাশেই শিশুরটির মা হাফসাকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পায় স্থানীয়রা। হাফসার গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরিবারের লোকজন হাফসাকে উদ্ধার করে রৌমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎিসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। আহত হাফসা আকতারকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে শিশুর মরদেহের সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করে রৌমারী থানায় নেওয়া হয়।
মৃত্যু হাফসার ভাই হাশিনুর রহমান জানান, আমার বোন হাফসাকে গত দেড় বছর আগে উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের উকড়াকান্দা গ্রামের বাহাদুরের ছেলে সাহেব আলীর সাথে বিয়ে দিই। বোনের ঘরে হাবিব নামের এক ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। জন্মের পর থেকে শিশুটির খিচুনী রোগ ছিল। গত শুক্রবার বোনের উকিল বাপ জুফিয়াল হক আমার বোন ও ভাগিনাকে নিয়ে কুড়িগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যায়। সেখান থেকে দুপুর ২ টার দিকে ফিরে আসার সময় আমার সাথে মোবাইলে কয়েক মিনিট কথা হয় এব্ং এরপর থেকে তার সাথে আর যোগাযোগ হয়নি।
রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই এবং লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে। এদিকে হত্যাকান্ডের বিষয় গুরত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজবিজয়/এফএইচএ

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy24

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

Nagad-Fifa-WorldCup

ইতিহাসের এই দিনে: ৩১ জানুয়ারি-২০২৩

google.com, pub-9120502827902997, DIRECT, f08c47fec0942fa0

রৌমারীতে মা-ছেলে খুন

প্রকাশিত সময়: ০৬:২৮:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ মে ২০২২

হাফসা আকতার (২৬) ও হাবিব (৫ মাস) নামের মা ছেলের রহস্যজনক ভাবে খুন হয়েছে। শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে রৌমারী থানার পুলিশ এবং শিশুর মাকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হলেও পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চা ল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার ভোররাতে কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার রৌমারী সদর ইউনিয়নের নতুন বন্দর হাজিপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভোররাতে প্রচন্ড বৃষ্টি হচ্ছিল। হঠাৎ আব্দুর সবুর নামের এক ব্যক্তির পুকুরপাড়ের পূর্বপাশে ধানক্ষেত থেকে আত্মচিৎকারের শব্দ শুনতে পায় স্থানীয়রা। ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটির মরদেহ ও পাশেই শিশুরটির মা হাফসাকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পায় স্থানীয়রা। হাফসার গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরিবারের লোকজন হাফসাকে উদ্ধার করে রৌমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎিসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। আহত হাফসা আকতারকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে শিশুর মরদেহের সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করে রৌমারী থানায় নেওয়া হয়।
মৃত্যু হাফসার ভাই হাশিনুর রহমান জানান, আমার বোন হাফসাকে গত দেড় বছর আগে উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের উকড়াকান্দা গ্রামের বাহাদুরের ছেলে সাহেব আলীর সাথে বিয়ে দিই। বোনের ঘরে হাবিব নামের এক ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। জন্মের পর থেকে শিশুটির খিচুনী রোগ ছিল। গত শুক্রবার বোনের উকিল বাপ জুফিয়াল হক আমার বোন ও ভাগিনাকে নিয়ে কুড়িগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যায়। সেখান থেকে দুপুর ২ টার দিকে ফিরে আসার সময় আমার সাথে মোবাইলে কয়েক মিনিট কথা হয় এব্ং এরপর থেকে তার সাথে আর যোগাযোগ হয়নি।
রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই এবং লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে। এদিকে হত্যাকান্ডের বিষয় গুরত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজবিজয়/এফএইচএ