সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকা চেয়ে গ্রামীণফোনকে বিটিআরসির চিঠি

বিজয় ডেস্ক: নিরীক্ষা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে গ্রামীণফোনের কাছে ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা পাওনা চেয়ে চিঠি দিয়েছে টেলিযোগাযাগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।
মঙ্গলবার গ্রামীণফোনের নির্বাহী বরাবর এ চিঠি পাঠানো হয় বলে জানিয়েছেন সংস্থার চেয়ারম্যান জহুরুল হক।

কত টাকা চাওয়া হয়েছে, জানতে চাইলে তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ‘একটি বিশাল অঙ্কের টাকা চেয়ে এ চিঠি পাঠানো হয়েছে।’

বিটিআরসির এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, গ্রামীণফোনের কাছ থেকে ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা চাওয়া হয়েছে। এখানে বিটিআরসির পাওনা ৮ হাজার ৪৯৪ কোটি এক লাখ টাকা এবং এনবিআরের পাওনা ৪ হাজার ৮৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা।

টাকা পরিশোধের জন্য গ্রামীণফোনকে ১০-১৫ দিন সময় দেয়া হয়েছে বলে জানান জহুরুল হক।

বিটিআরসির ওই কর্মকর্তা বলেন, গত বছর নিরীক্ষার ভিত্তিতে পাওনা টাকা চেয়ে গ্রামীণফোনের কাছে চিঠি দিলে তা রিভিজিট বা পুনর্মূল্যায়নের জন্য বলে অপারেটরটি। নিরীক্ষা প্রতিবেদনটি পুনরায় মূল্যায়ন করে চিঠি দেয়া হয়েছে।

তবে বিটিআরসির পুনর্মূল্যায়নেও আপত্তি রয়েছে গ্রামীণফোনের। কোম্পানির এক বিবৃতিতে বলা হয়, যে অর্থ বিটিআরসি দাবি করছে, তার সঙ্গে তারা একমত নয়। এ নিরীক্ষায় তাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো প্রতিফলিত না হওয়াটা দুর্ভাগ্যজনক।

নিরীক্ষা প্রক্রিয়ায় ত্রুটি ছিল দাবি করে গ্রামীণফোন বলেছে, এ পাওনা নির্ধারণে নিজেরাই একটি নিরীক্ষা করাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon