সুবীর নন্দীর এখনো জ্ঞান ফেরেনি

বিনোদন ডেস্ক: হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। সবকিছুই কৃত্রিম উপায়ে চলছে। হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ৪০ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও এখনো অচেতন রয়েছেন তিনি। তবে চিকিৎসকরা তার ব্যাপারে আশাবাদী।

মঙ্গলবার দুপুরে এ তথ্য জানিয়েছেন দেশ বরেণ্য এই সংগীতশিল্পীর জামাতা ড. রাজেশ সিকদার।

ড. রাজেশ সিকদার বলেন, সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। সবকিছুই কৃত্রিম উপায়ে চলছে। তিনি এখনো অচেতন। তবে চিকিৎসকেরা তার ব্যাপারে আশাবাদী।

সুবীর নন্দীকে দেখে এসে জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের জাতীয় সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন বলেছেন, সুবীর নন্দীর অবস্থা ভালো না। তিনি দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস রোগে ভুগছেন। তার হার্টে বাইপাস অপারেশন হয়েছে। এছাড়া কিডনির সমস্যা রয়েছে। তাই নিয়মিত ডায়ালাইসিস করাতে হয়।

তিনি বলেন, অসুস্থ হয়ে গতকাল হাসপাতালে আনার পর তার মারাত্মক কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়েছে। এখন তাকে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছে। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।

গুরুতর অসুস্থ জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী সুবীর নন্দীকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। রোববার রাত ১০টার দিকে তাকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে রাত ১১টার দিকে এই শিল্পীকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

চলচ্চিত্রে প্রথম গান করেন ১৯৭৬ সালে আব্দুস সামাদ পরিচালিত ‘সূর্যগ্রহণ’ ছবিতে। ১৯৮১ সালে তার একক অ্যালবাম ‘সুবীর নন্দীর গান’ ডিসকো রেকর্ডিংয়ের ব্যানারে বাজারে আসে। তিনি গানের পাশাপাশি দীর্ঘদিন চাকরি করেছেন ব্যাংকে।

চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে চারবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও অর্জন করেছেন তিনি। আর চলতি বছরে সংগীতে অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার সুবীর নন্দীকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Right Menu Icon