ঢাকা ০৪:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্কুলের পরিত্যক্ত ঘরে দুই ভাইয়ের মরদেহ

Up to BDT 150 Cashback on New Connection

দিনাজপুর বিরলের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যক্ত কক্ষ থেকে দুই সহোদরের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বিরলের বিজোড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত বড় ভাই ইমন হাসান (৭) ও ছোট ভাই ইমরান হাসান (৩)। লাশ দুটি উদ্ধারের সংবাদ নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলাম উদ্দিন।

নিহত আপন সহোদর দুই ভাই দিনাজপুর জেলার বিরল পৌরসভা এলাকার শংকরপুর ঘোড়া পীর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে।

নিহত শিশু দুটির দাদা রফিকুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে আমার ছেলে শরিফুল ইসলাম আমার দুই নাতিকে সাথে নিয়ে বিরলের বাজারে শীতের কাপড় কিনে দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। গভীর রাত পর্যন্ত তারা বাড়িতে না আসা পর্যন্ত আমরা বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজন ও নিকটস্থ জায়গায় অনেক খোঁজাখুঁজি করি কিন্তু কোথাও তাদের সন্ধান পাই নাই। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বিরলের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক স্কুলের পাশ থেকে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে জানতে পারি দুটি শিশুর পড়ে আছে। ঘটনাস্থলে এসে শনাক্ত করি এই দুই শিশু হলো আমার কলিজার টুকরা দুই নাতি। আগে থেকেই আমার ছেলে এই দুই শিশুকে মেরে ফেলে নিজেও বিষ খাবে এমন হুমকি দিয়ে আসছিল। অনেক দিন ধরেই সে পরিবারের হুমকি দিয়ে আসছিল, তার এই বাস্তবায়ন ঘটিয়েছে সে আজ।

দিনাজপুর পৌর মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর বলেন, গত এক মাস আগেই শরিফুল ও তার স্ত্রী উম্মে কুলসুমের মধ্যে তালাক হয়। এই তালাকের জের ধরেই শিশু দুটির বাবার শরিফুল ইসলাম নিজ হাতে তুই শিশুকে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে। ঘাতক পিতা পলাতক রয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলামউদ্দিন বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে শিশু দুটির বাবা শরিফুল ইসলাম নিজেই তার বাড়ি থেকে প্রায় সাত কিলোমিটার দূরে ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যক্ত কক্ষে খাবারের সাথে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ মরদেহ দুটি উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে। পুলিশ ঘাতক পিতাকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

স্কুলের পরিত্যক্ত ঘরে দুই ভাইয়ের মরদেহ

প্রকাশিত সময়: ০২:২২:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০২২

দিনাজপুর বিরলের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যক্ত কক্ষ থেকে দুই সহোদরের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বিরলের বিজোড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত বড় ভাই ইমন হাসান (৭) ও ছোট ভাই ইমরান হাসান (৩)। লাশ দুটি উদ্ধারের সংবাদ নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলাম উদ্দিন।

নিহত আপন সহোদর দুই ভাই দিনাজপুর জেলার বিরল পৌরসভা এলাকার শংকরপুর ঘোড়া পীর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে।

নিহত শিশু দুটির দাদা রফিকুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে আমার ছেলে শরিফুল ইসলাম আমার দুই নাতিকে সাথে নিয়ে বিরলের বাজারে শীতের কাপড় কিনে দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। গভীর রাত পর্যন্ত তারা বাড়িতে না আসা পর্যন্ত আমরা বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজন ও নিকটস্থ জায়গায় অনেক খোঁজাখুঁজি করি কিন্তু কোথাও তাদের সন্ধান পাই নাই। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বিরলের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক স্কুলের পাশ থেকে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে জানতে পারি দুটি শিশুর পড়ে আছে। ঘটনাস্থলে এসে শনাক্ত করি এই দুই শিশু হলো আমার কলিজার টুকরা দুই নাতি। আগে থেকেই আমার ছেলে এই দুই শিশুকে মেরে ফেলে নিজেও বিষ খাবে এমন হুমকি দিয়ে আসছিল। অনেক দিন ধরেই সে পরিবারের হুমকি দিয়ে আসছিল, তার এই বাস্তবায়ন ঘটিয়েছে সে আজ।

দিনাজপুর পৌর মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর বলেন, গত এক মাস আগেই শরিফুল ও তার স্ত্রী উম্মে কুলসুমের মধ্যে তালাক হয়। এই তালাকের জের ধরেই শিশু দুটির বাবার শরিফুল ইসলাম নিজ হাতে তুই শিশুকে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে। ঘাতক পিতা পলাতক রয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলামউদ্দিন বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে শিশু দুটির বাবা শরিফুল ইসলাম নিজেই তার বাড়ি থেকে প্রায় সাত কিলোমিটার দূরে ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যক্ত কক্ষে খাবারের সাথে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ মরদেহ দুটি উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে। পুলিশ ঘাতক পিতাকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে।